পুলিশ সদস্যদের আরো আন্তরিক হওয়ার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

0

পুলিশের কাছ থেকে মানুষ যেন নির্বিঘ্নে সেবা নিতে পারে, সেজন্য বাহিনীর সদস্যদের আরো আন্তরিক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। তিনি বলেন, জনগণ বিপদে পড়লেই পুলিশের দ্বারস্থ হয়। তাই সেবা নিতে আসা মানুষ যেন সঠিক সেবা পায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

পুলিশ সপ্তাহ উপলক্ষে বুধবার বঙ্গভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্দেশে এ কথা বলেন রাষ্ট্রপতি।

মো. আবদুল হামিদ বলেন, সেবা প্রদানের মাধ্যমেই পুলিশ একটি সেবাধর্মী ও জনবান্ধব প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে উঠুক, এটাই জনগণ প্রত্যাশা করে। তিনি বলেন, ‘দুষ্টের দমন ও শিষ্টের পালন’ এই নীতিকে সামনে রেখে দায়িত্ব পালন করতে হবে। জনগণ বিপদে পড়লেই পুলিশের দারস্থ হয়। তাই আপনাদের নিকট সেবা নিতে আসা প্রতিটি মানুষ যেন নির্বিঘ্নে সেবা নিতে পারে সেদিকে বিশেষভাবে আন্তরিক হতে হবে। আর সেবা প্রদানের মাধ্যমে বাংলাদেশ পুলিশ একটি সেবাধর্মী ও জনবান্ধব প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে উঠুক এইটাই জনগণের প্রত্যাশা।

দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তায় পুলিশকে আরো দায়িত্বশীল হওয়ার আহ্বান জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ও সমাজ ব্যবস্থায় আইনের শাসন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ ও মানবাধিকার সমুন্নত রেখে নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালনে অবিচল থাকতে পুলিশের প্রতি নির্দেশ দেন রাষ্ট্রপ০তি।

নিজের বক্তব্যে মো. আবদুল হামিদ বলেন, ‘দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিধান, জনগণের জানমালের সুরক্ষা, আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা, সন্ত্রাস ও অপরাধ দমন বাংলাদেশ পুলিশের প্রধান ও পবিত্র দায়িত্ব। সব পর্যায়ের পুলিশ কর্মকর্তা ও পুলিশ সদস্যদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে জনসাধারণকে আইনগত সহায়তা প্রদানে বিশেষভাবে তৎপর থাকতে হবে। বাংলাদেশ পুলিশকে জনমুখী ও সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান হিসেবে জনগণের নির্ভরতা ও আস্থার স্থলে পরিণত করতে আপনাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে।’

জঙ্গি দমনে পুলিশের কার্যক্রমের প্রশংসা করে রাষ্ট্রপতি মো আবদুল হামিদ বলেন, জঙ্গি দমনে বাংলাদেশ পুলিশের সাফল্য শুধু দেশেই নয়, আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Share.

Leave A Reply

Inline
Error occured while retrieving the facebook feed
Inline
Error occured while retrieving the facebook feed