৩০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ , রাত ১০:৫০ , বৃহস্পতিবার

রোহিঙ্গাদের জন্য তোলা টাকা ভাগাভাগিকে কেন্দ্র করে জবিতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

0

মাছুম বিল্লাল আখন্দ,জবি প্রতিনিধি: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি)তে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য তোলা টাকা ভাগাভাগিকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে সাত ছাত্রলীগকর্মী আহত হয়েছেন।

সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে ছাত্রলীগের ভার্টেক্স ও মার্শাল নামের দুই গ্রুপের কর্মীদের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

জানা যায়, গত শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ‘বি’ ইউনিটের পরীক্ষার সময় ভার্টেক্স নামের ছাত্রলীগের একটি গ্রুপ শিক্ষার্থীদের থেকে রোহিঙ্গাদের সাহায্যের কথা বলে প্রায় দেড় লাখ টাকা উঠায়। ওই টাকা রোহিঙ্গাদের সাহায্যে না পাঠিয়ে নিজেদের মধ্যেই ভাগাভাগি করে নেওয়ার পরিকল্পনা হয় বলে অভিযোগ ওঠে। গতকাল রবিবার মার্শাল গ্রুপের মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী শাকিল এর প্রতিবাদ করেন। পরে তাকে ভার্টেক্স গ্রুপের ছেলেরা মারধর করেন। এরই সূত্র ধরে সোমবার দুপুর একটার দিকে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে ১২তম ব্যাচের নাঈম, আশিক, শুভ, শাকিল, মাহফুজসহ সাত শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন।
এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর নূর মোহাম্মদ বলেন, ‘ক্যাম্পাসে ১২তম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা নিজেদের মধ্যে হাতাহাতি করেছে। গুরুতর কোনো সংঘর্ষ হওয়ার আগেই প্রশাসন তাদের থামিয়ে দিয়েছে। ঘটনার সূত্রপাত কীভাবে হয়েছে সে বিষয়ে আমরা এখনো কোনো তথ্য পাইনি। আগামীকাল মঙ্গলবার এ ব্যাপারে তথ্য সংগ্রহ করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
প্রসঙ্গত, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের গোপালগঞ্জের ১২তম ব্যাচের শিক্ষার্থীদের নিয়ে গঠিত গ্রুপের নাম বার্টেক্স। অন্যদিকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের ময়মনসিংহের ১২তম ব্যাচের শিক্ষার্থীদের নিয়ে গঠিত গ্রুপের নাম মার্শাল। এই গ্রুপের কর্মীদের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে বেশ কিছু অভিযোগ প্রক্টর অফিসে জমা পড়েছে। সদরঘাটের পাটুয়াটুলীতে চশমার দোকানে ভাংচুর এবং কবি নজরুল কলেজ শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকদের উপর হামলার অভিযোগও রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

Print Friendly, PDF & Email
It's only fair to share...Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

Leave A Reply